প্রচ্ছদ / রাজশাহী / বিস্তারিত

স্বামীর পরকিয়ায় বাঁধা দেওয়ায় স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যা

৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৬:২১:১৭

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে স্বামীর পরকিয়ায় বাঁধা দেওয়ায় স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বৃহস্পতিবার (৭ ফেব্রুয়ারি ) বিকেলে উপজেলার বেলতৈল ইউনিয়নের ঘোড়শাল মোল্লাপাড়া গ্রামে এই চাঞ্চল্যকর হত্যাকান্ডের ঘটনাটি ঘটেছে। এ ঘটনায় শাহজাদপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের হয়েছে।

নিহত সোনিয়া খাতুন আম্বিয়া (২২) তাড়াশ উপজেলার উপজেলাপাড়া গ্রামের শাহ আলম সরকারের মেয়ে ও শাহজাদপুর বেলতৈল ইউনিয়নের ঘোড়শাল মোল্লাপাড়া গ্রামের আবুল কালাম আকন্দ (৪০) এর স্ত্রী।

নিহতর পিতা শাহ আলম সরকার জানান, গত আট বছর আগে সৌদি ফেরত আবুল কালাম আকন্দর সাথে তার মেয়ে সোনিয়া খাতুন আম্বিয়ার বিয়ে হয়।

তাদের ঘরে সোহান (৪) নামের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। বিয়ের পর থেকে সে কোন কাজ কর্ম না করে ঘুরে বেড়ায়। এ নিয়ে তাদের মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া হয়। সম্প্রতি সে পরকিয়ায় আসক্ত হয়ে পড়লে তাদের মধ্যে নতুন করে ঝগড়া বিবাদ শুরু হয়। ফলে সোনিয়াকে গত ১ মাস ধরে তার বাবা মায়ের সাথে ফোনে কথা বলা ও বাবার বাড়িতে বেড়াতে যাওয়া সম্পূর্ণ বন্ধ করে দেয়।

এর এক পর্যায়ে বৃহস্পতিবার বিকেলে তাকে শ্বাসরোধে হত্যার পর এটাকে আত্মহত্যা বলে প্রচার করে।

খবর পেয়ে নিহত সোনিয়ার বাবার বাড়ির লোকজন ঘটনাস্থলে ছুটে এলে স্বামী, শ্বশুর, শ্বাশুড়িসহ অন্যান্যরা বাড়িঘর ফেলে পালিয়ে যায়।

পুলিশে খবর দিলে শাহজাদপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে শুক্রবার (৮ ফেব্রুয়ারি ) সকালে ময়না তদন্তর জন্য সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

এ ব্যাপারে শাহজাদপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ খাজা গোলাম কিবরিয়া জানান, নিহত সোনিয়ার শ্বশুরবাড়ির লোকজন এটাকে আত্মহত্যা বলে দাবী করলেও সোনিয়ার বাবা মা এটাকে পরিকল্পিত হত্যা দাবী করছে। তাই এটি হত্যা না আত্মহত্যা তা নির্ধারণে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: