প্রচ্ছদ / রংপুর / বিস্তারিত

For Advertisement

750px X 80px

Call : +8801911140321

হাতীবান্ধায় ছুরিঘাতে রকেট কর্মী আহত, আটক ১

কারেন্ট নিউজ বিডি   ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৭:২০:৫৮

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে রেজাউল ইসলাম(২৮) নামে এক ডাচ্ বাংলা মোবাইল ব্যাংকিং রকেটের কর্মীকে ছুরিঘাত করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে সুজন নামে এক বখাটের বিরুদ্ধে। রোবার (১০ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে উপজেলার দইখাওয়া বাজারে এ দুর্ঘটনাটি ঘটেছে।

এ সময় স্থানীয়রা রেজাউলকে গুরুত্বর আহত অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে জরুরী বিভাগের দায়িত্বরত চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

For Advertisement

750px X 80px
Call : +8801911140321

এ ঘটনায় অভিযুক্ত সুজনের বাবা আব্দুল কাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

আহত রেজাউল ইসলাম উপজেলার পূর্ব কাদমা গ্রামের মৃত সোলেমান গনির পুত্র। সে দইখাওয়া বাজারের রকেট এজেন্টের একজন কর্মী। আর অভিযুক্ত সুজন উপজেলার দইখাওয়া গ্রামের আব্দুল কাদেরের পুত্র।

জানাগেছে, রোববার বিকেলে দইখাওয়া বাজারে মোস্তাফিজুর মেম্বারের রকেট এজেন্টে টাকা তুলতে যায় সুজন। এ সময় ভুলবসত সুজনের শরীরের সাথে ধাক্কা লাগে রকেট এজেন্টে কর্মী রেজাউলের।

এতে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে সুজন। এতে দুজনের মধ্যে তর্ক বিতর্ক হয়। পরে দোকানের মালিক মোস্তাফিজুর মেম্বার তাদের নিয়ে চায়ের দোকানে বসে বিষয়টি সমাধানের চেষ্ঠা চালায়।

এক পর্যায়ে সুজনের শরীরে জ্যাকেটের নিচে লুকিয়ে রাখা ছুরি দিয়ে রেজাউলের পিঠে আঘাত করে। সেখানেই রেজাউল অচেতন হয়ে পরে। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে।

এ বিষয়ে হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগের দায়িত্বরত চিকিৎসক ড. আসাদুজ্জামান জানান, রেজাউলের পিঠের ক্ষত গুরতর হওয়ায় তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওমর ফারুক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সুজনের বাবা আব্দুল কাদেরকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। আর জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা করা হচ্ছে।

For Advertisement

750px X 80px

Call : +8801911140321

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: