প্রচ্ছদ / চট্টগ্রাম / বিস্তারিত

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

চাঁদপুরে ট্রেনে আগুন, অল্পে রক্ষা পেল কয়েকশ যাত্রী

কারেন্ট নিউজ বিডি   ৯ মার্চ ২০১৮, ৪:৪৬:০৬

ঢাকা০৯ মার্চকারেন্ট নিউজ বিডিচাঁদপুর-চট্টগ্রাম রুটে চলাচলকারী আন্তঃনগর মেঘনা এক্সপ্রেস ট্রেনে আগুনের ঘটনা ঘটেছে। পাওয়ার কারের ইঞ্জিন রুমে ওভার হিট ও শটসার্কিটের ফলে জেনারেটর বিস্ফোরণ হয়ে ট্রেনটির ৮৩৫নং বগিতে এই আগুন লাগে। মুহূর্তের মধ্যে আগুন ট্রেনের বগিতে ছড়িয়ে পড়ে।

বৃহস্পতিবার রাত পৌনে ১০টায় চাঁদপুর স্টেশন এলাকায় বিদ্যুৎ অফিসের সামনে ঘটে এই ঘটনা। আগুনে কেউ হতাহত না হলেও হুড়োহুড়ি করে নামতে গিয়ে কয়েকজন আহত হয়েছেন। এতে ট্রেনের প্রায় অর্ধকোটি টাকা ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন চাঁদপুরে কর্মরত রেলওয়ে কর্মকর্তারা।

For Advertisement

750px X 80px
Call : +8801911140321

চাঁদপুর রেলওয়ের বিদ্যুৎ বিভাগ, ক্যারেজ বিভাগ, ট্রেনের দায়িত্বে থাকা ইলেকট্রিক ফিটার, রেলওয়ে পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, চাঁদপুর-চট্টগ্রাম রুটে চলাচলকারী আন্তঃনগর মেঘনা এক্সপ্রেস ট্রেনটি চাঁদপুর স্টেশনে পৌঁছার সঙ্গে সঙ্গে পাওয়ার কারের ভেতরে আগুন লেগে যায়। এ খবর ছড়িয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে শত-শত যাত্রী আতঙ্কে ট্রেন থেকে হুড়োহুড়ি করে নামতে থাকে। এতে অন্তত ৩০ যাত্রী আহত হন।

ট্রেনের ১৭টি বগির মধ্যে মাঝামাঝি স্থানে থাকা ৮৩৫৮নং বগিটির পাওয়ার কারে আগুন লাগে। আগুনের খবরে পুরো স্টেশন এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। ট্রেনের সব লাইট বন্ধ হয়ে যায়। অন্ধকারে যাত্রীরা চিৎকার করতে থাকে।

এরই মধ্যে ট্রেনের খাওয়ার বগির আবুল হাশেম মিয়া, নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য আবুল কালাম, ক্যারেজ স্টাফ জুয়েল পাটওয়ারী, রেলওয়ে থানার এসআই শাহজাহান, এএসআই কামাল হোসেন, পুলিশ সদস্য শাহজাহান, গিয়াস উদ্দিন ও এলাকার দোকানদারসহ ২০/২৫ জন ট্রেনে থাকা ১১টি অগ্নিনির্বাপক যন্ত্রের সাহায্যে গ্যাস ছিটিয়ে দিতে থাকেন। অনেকে বালতি ও কলসি দিয়ে পানি এনে মেরে অল্প সময়ের মধ্যে আগুন নেভাতে সক্ষম হন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আগুন ট্রেনের বগিগুলোতে ছড়াতে না পারায় পাওয়ার কারসহ ১৭টি বগি রক্ষা পেয়েছে। তা না হলে পুরো ট্রেনই পুড়ে যেত। প্রাণহানির আশঙ্কাও ছিল।

ঘটনার ৩০ মিনিট পরে উপস্থিত হন চাঁদপুর ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার ফারুক আহমেদসহ ফায়ার সার্ভিসের ১৬ জন কর্মী। তবে ততক্ষণে আগুন নিভিয়ে ফেলেন ট্রেন ও স্টেশনের স্টাফরা।

পাওয়ার কারে থাকা দ্বিতীয় ড্রাইভার আব্দুল করিম ইলেক্ট্রিক ফিটার গ্রেড-২ জানান, ইঞ্জিন ওভার হিটের কারণে পাওয়ার কারের অ্যাডভেস্টোটের কাপড়ে আগুন লেগে জেনারেটরে আগুন লেগে যায়।

চাঁদপুর ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার  ফারুক আহমেদ ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘আমরা আসার আগে রেলওয়ে স্টাফরা আগুন নিভিয়ে ফেলে। তবে পাওয়ার কারে পরিদর্শনকালে দেখা যায় ওভার হিটের কারণে জেনারেটরে আগুন লেগে এ ঘটনা ঘটেছে।’

চাঁদপুর রেলওয়ের টিএক্সআর আবুল কাশেমও একই তথ্য জানিয়েছেন।

সর্বশেষ ফোরম্যান বিল্লাল জানিয়েছেন, আগুনে ট্রেনের ইঞ্জিনের কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। চাঁদপুর থেকে ট্রেনটি শুক্রবার সকালে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়ার কথা রয়েছে।

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: