প্রচ্ছদ / বরিশাল / বিস্তারিত
 

For Advertisement

600 X 120

আত্মশুদ্ধির মাধ্যমে আল্লাহকে পাওয়া যাবে: চরমোনাই পীর

৯ মার্চ ২০১৮, ৫:১৩:২৭

ঢাকা০৯ মার্চকারেন্ট নিউজ বিডিচরমোনাই পীর হজরত মাওলানা মুফতি সৈয়দ রেজাউল করিম বলেছেন, আল্লাহ ও তার রাসুলের সন্তষ্টি অর্জন করাই মানবজীবনের একমাত্র লক্ষ্য। মানুষের জীবনের প্রতিটি স্তরে ইসলামি আদর্শ বাস্তবায়ন করলেই এই লক্ষ্য অর্জন করা সম্ভব। মন্দ স্বভাব দূর করে আত্মশুদ্ধির মাধ্যমে আল্লাহকে পাওয়ার পথ বাতলে দেয়াই চরমোনাইয়ের এ মাহফিলের উদ্দেশ্য। এখানে এসে দুনিয়া অর্জন করা যায় না। আখেরাত অর্জন করার জন্যই নিজেকে আত্মশুদ্ধি লাভের নিয়ত করে মাহফিলে অংশ নিতে হবে।

তিনি বলেন, আল্লাহভোলাদের আল্লাহর পথ দেখানোই হলো চরমোনাই মাহফিলের উদ্দেশ্য। চরমোনাই মাহফিল আখিরাতের কামাইয়ের জন্য, দুনিয়া অর্জনের জন্য নয়। এখানে পার্থিব উন্নয়নের কোনো তদবির দেয়া হয় না। আমরা তদবির দিই না। কোনো তদবির দিতেও জানি না।

 

For Advertisement

600 X 120

বুধবার বাদ জোহর তিন দিনব্যাপী বার্ষিক ওয়াজ মাহফিলের উদ্বোধনী বয়ানে এসব কথা বলেন চরমোনাই পীর।

মাহফিলের প্রথম দিনে লাখ লাখ মুসল্লি চরমোনাই দরবার শরিফে ভিড় করেন। কীর্তনখোলার তীর মুসল্লিদের আল্লাহুআকবর ধ্বনিততে মুখরিত উঠে।

চরমোনাই পীর দ্বিতীয়, পঞ্চম, ষষ্ঠ বয়ান এবং আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন। কেবল তৃতীয়, চতুর্থ বয়ান করবেন শায়খে চরমোনাই মুফতি সৈয়দ ফয়জুল করীম।

মাহফিলের দ্বিতীয় দিন সকাল দশটায় উলামা মাশায়েখ সম্মেলনে দেশ-বিদেশের বরেণ্য আলেমরা বক্তৃতা করবেন।

ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটির যোগাযোগ বিভাগে কাজী মাওলানা মামুনুর রশীদ খান জানান, মুসল্লিদের অবস্থানের জন্য চার বর্গ কিলোমিটার ব্যাপী চারটি মাঠে সামিয়ানা টানানো হয়েছে।

মাহফিলের নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশ-র‌্যাব ছাড়াও নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় প্রায় ছয় হাজার স্বেচ্ছাসেবক কাজ করছেন। নিজস্ব প্রায় ১শটি ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরার মাধ্যমে সবকটি মাঠের নিরাপত্তা মনিটরিং করা হচ্ছে। তিন হাজারের অধিক মাইকের মাধ্যমে সব মাঠে বয়ান শোনার ব্যবস্থা করা হয়েছে। নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের জন্য নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় তিনটি হাইভোল্টেজ অটো জেনারেটর রাখা হয়েছে। মুসল্লিদের খাবার পানি ও অজু-গোসলের জন্য বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ করতে অস্থায়ী লাইন স্থাপন করা হয়েছে। চিকিৎসা সেবায় বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের তত্ত্বাবধানে ২শ শয্যাবিশিষ্ট একটি অস্থায়ী হাসপাতাল বসানো হয়েছে।

দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আগত মুসল্লিদের পাশাপাশি এবারের মাহফিলে ভারত, সৌদি আরব, ওমান, দুবাই, বাহরাইন, মালয়েশিয়া, লন্ডন ও আমেরিকাসহ বিভিন্ন দেশের বিশিষ্ট আলেম-ওলামা ও মেহমান উপস্থিত হয়েছেন বলে মাহফিল কমিটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

 

For Advertisement

600 X 120

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: