For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

বঙ্গবন্ধু রেল সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর ১৪ মার্চ

ভারতের সাথে আরও দুটি ট্রেন চলাচলের কথা ভাবছে সরকার: রেলমন্ত্রী

কারেন্ট নিউজ বিডি   ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৫:৩০:৫৬

বর্তমান সরকার ভারতের সাথে বাংলাদেশের আরও দু’টি ট্রেন পরিচালনার কথা ভাবছে বলে বুধবার (৫ ফেব্রুয়ারি) জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন।

নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, রাজশাহীর মানুষের চাহিদার কথা বিবেচনা করে রাজশাহী থেকে শিয়ালদহ পর্যন্ত, যদিও ভারত চাচ্ছে রাজশাহী থেকে হাওড়া পর্যন্ত একটি ট্রেন। পাশাপাশি চিলাহাটি-হলদিবাড়ি ৭ কিলোমিটার রেললাইন চালু হলে এ বছরেই আমরা ঢাকা থেকে শিলিগুঁড়ি ট্রেন চালু করতে পারব।

For Advertisement

750px X 80px
Call : +8801911140321

এ ব্যাপারে বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের রাষ্ট্রদূত রিভা দাশ গাঙ্গুলিও আগ্রহ প্রকাশ করেছেন বলে জানান তিনি।

রাজধানীর রেল ভবনের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা জানান।

রেলমন্ত্রী জানান, যমুনা নদীর ওপর দ্বিতীয় বঙ্গবন্ধু ডুয়েল গেজ (ডাবল লাইন) রেল সেতু নির্মাণের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন আগামী ১৪ মার্চ হতে পারে।

এ সেতু নির্মাণের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, এদিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজে যমুনা নদীর পাড়ে গিয়ে এ রেল সেতুর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করতে পারেন অথবা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমেও হতে পারে। তবে এখনও তা নির্দিষ্ট হয়নি। জাপানের একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান বঙ্গবন্ধু রেল সেতু নির্মাণের কাজ করবে।

প্রসঙ্গত মন্ত্রী জানান, ১১ ফেব্রুয়ারি থেকে মৈত্রী এক্সপ্রেস সপ্তাহের সোম- বৃহস্পতিবার বাদে চার দিনের পরিবর্তে ৫ দিন চলবে। ওইদিন থেকে সোম- বৃহস্পতিবার ঢাকা-কলকাতা এবং রবি-বৃহস্পতিবার কোলকাতা-ঢাকা পথে মৈত্রী ট্রেনটি বন্ধ থাকবে।

অপরদিকে, খুলনা-কলকাতা-খুলনা চলাচলরত বন্ধন এক্সপ্রেস ১৬ ফেব্রুয়ারি থেকে একদিনের পরিবর্তে সপ্তাহের রবি ও বৃহস্পতিবার এ দুইদিন চলবে।

পদ্মাসেতুর রেল লিংক কাজের ধীর গতিতে হওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, পদ্মা সেতুর ওপর দিয়ে যেদিন বাস চলাচল করবে একইদিনে যাতে ট্রেন চলতে পারে সেই টার্গেট রেখেই আমাদের কাজ চলমান রয়েছে।

তিনি বলেন, তবে আমরা উদ্যোগ নিয়েছি ভাঙ্গা থেকে পদ্মা সেতুর ওপর দিয়ে মাওয়া অংশটুকু রেল লাইনের কাজটি দ্রুত সম্পন্ন করার।

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: