For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুল দেখিয়ে পুনরায় চালু অবৈধ ইটভাটা

কারেন্ট নিউজ বিডি   ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ৩:০০:২৬

পিরোজপুর সদর উপজেলার শারিকতলা ডুমরিতলা ইউনিয়নের পূর্ব হরিণা গ্রামে থাকা একটি ইট ভাটাকে জরিমানা করা হয়েছিল ২০ লাখ টাকা। জরিমানার টাকা দিতে না পারায় ভাটার ম্যানেজার সাজা খাটছেন। তারপরেও আবার প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুল দেখিয়ে ইট পোড়ানো শুরু করছে এ.এফ. এ. ব্রিকস এর মালিক।

জানা গেছে, পরিবেশ অধিদপ্তর ২০১৯ সালের ২৫ ডিসেম্বর পিরোজপুর সদর উপজেলার পূর্ব হরিনা গ্রামের নজরুল ইসলাম মনিরের মালিকানাধীন এ.এফ.এ. ইট ভাটায় অভিযান চালায়। এ সময় পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা অভিযানে ভেকু মেশিন দিয়ে অবৈধভাবে তৈরি করা ইটভাটাটি ভেঙে দেয়। এ সময় ইট প্রস্তুত করার অপরাধে ইটভাটার ম্যানেজার পিরোজপুর সদর উপজেলার দক্ষিণ রাণীপুর গ্রামের ইমাম হোসেনের ছেলে সোয়াইব হোসেনকে আটক করে। এরপর ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে সোয়াইব হোসেনকে ইট পোড়ানো ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) আইন ২০১৩ (সংশোধিত ২০১৯) এর ৪ ধারা অনুযায়ী ২০ লক্ষ টাকা জরিমানা অথবা ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করে। সোয়াইব হোসেন বর্তমানে জেলা কারাগারে হাজতবাস করছেন। এর পরেও ইট ভাটার কার্যক্রম আবার শুরু হয়েছে। তবে এ.এফ.এ. ব্রিকস ফিল্ডে গিয়ে দেখা গেছে, ভেঙে দেয়া চুল্লিটি নতুন করে তৈরি করা হয়েছে। পাশেই করাত কল স্থাপন করে কাটা হচ্ছে গাছ। এছাড়া ইটও তৈরি করে শুরু করা হয়েছে ইট পোড়ানো।

For Advertisement

750px X 80px
Call : +8801911140321

পিরোজপুর সদর উপজেলার শারিকতলা-ডুমরিতলা ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. জাহিদুল ইসলাম মিরাজ জানান, পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা এ.এফ. ব্রিকস এ গত বছরের ডিসেম্বরে অভিযান চালিয়ে ভাটাটি বন্ধ করে দেয়া হয় এবং তখন ২০ লাখ টাকা জরিমানা করে। জরিমানার টাকা দিতে না পারায় ভাটার ম্যানেজার সোয়াইব হোসেনকে আটক করে কারাগারে প্রেরণ করা হয়। বর্তমানে ইট ভাটার মালিক নজরুল ইসলাম মনির তার ইট ভাটার কার্যক্রম শুরু করেছেন। কিভাবে করলেন, তা তিনি জানেন না বলে জানান।

ইট ভাটার মালিক নজরুল ইসলাম মনিরের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, পরিবেশ অধিদপ্তরের কাছ থেকে মৌখিক অনুমোদন পাওয়া গেছে, সে কারণে তিনি ইটপোড়ানোর প্রস্তুতি নিচ্ছেন। চুড়ান্ত অনুমোদন পেলে ইট পোড়ানো শুরু হবে। এ সময় বলেন, অত্র এলাকায় তার মতো আরও কয়েকটি ইটভাটা রয়েছে। তারা যেভাবে ইট পোড়ানোর কাজ করছে তিনিও সেভাবে করবেন।

তিনি বলেন, সোয়াইব হোসেন তার ভাটার ম্যানেজার। অভিযানকালে পরিবেশ অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা সোয়াইব হোসেনকে আটক করে। সে এখন কারাগারে সাজা ভোগ করছে।

পরিবেশ অধিদপ্তর বরিশাল র্কাযালয়ের পরিচালক ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. আ. হালিম জানান, ভাটা চালানোর জন্য এ.এফ.এ. ব্রিকসকে কোন রকম মৌখিক অনুমতি দেয়া হয়নি। অবৈধভাবে ভাটা চালানোর জন্য গত বছরের শেষের দিকে এ.এফ. এ. ব্রিকস ও আরো একটি ইটভাটায় অভিযান চালিয়ে সেগুলো বন্ধ করে দেয়া হয়েছিল। এ সময় এ.এফ.এ. ব্রিকসকে ২০ লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে এক বছর বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছিল।

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: