প্রচ্ছদ / খেলাধুলা / বিস্তারিত

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

‘মনে রাখতে হবে ইমোশন ও আগ্রাসন যেন সীমা না অতিক্রম করে’

কারেন্ট নিউজ বিডি   ২০ মার্চ ২০১৮, ৫:১৬:১৭

ঢাকা, ২০ মার্চকারেন্ট নিউজ বিডিবাইশ গজে ক্রিকেট যুদ্ধ চলাকালীন দু‘দলের খেলোয়াড়দের আবেগ ও আগ্রাসন সাধারণ ব্যপার৷কিন্তু দেখতে হবে আগ্রাসন যেন খারাপের দিকে এগিয়ে না যায়৷ব্যক্তিগত আক্রমণ কখনও খেলোড়ায়সুলভ আচরণ নয়৷

‘বাইশ গজের ইমোশন ও আগ্রাসন‘কে সমর্থন করলেও ক্রিকেট মাঠের এই উষ্ণায়নের সমালোচনা করলেন প্রাক্তন অজি পেসার ব্রেট লি৷

For Advertisement

750px X 80px
Call : +8801911140321

সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়া-দক্ষিণ আফ্রিকা চলতি সিরিজ থেকে শুরু করে সদ্য শেষ হওয়া নিদাহাস ট্রফিতে মাঠে ও ড্রেসিংরুমে ঝামেলায় জড়িয়েছেন খোলোয়াড়রা৷রবিবার নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে ধারাভাষ্যকার হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রাক্তন অস্ট্রেলিয়ান পেসার৷বাইশ গজে খেলোয়াড়দের আক্রমণাত্মক মনোভাব নিয়ে তিনি জানান, ‘ইমোশন ও আগ্রাসন ক্রিকেটেরই অংশ৷সত্যি কথা বলতে কি আমরা খেলার মাঠে রোবট চাই না৷কিন্তু আমাদের সবসময় মনে রাখতে হবে সেটা যেন সীমা না অতিক্রম করে৷’

অজি-প্রোটিয়া চলতি টেস্ট সিরিজে প্রথম টেস্টে ওয়ার্নার-ডি’ককের ঝামেলা শিরোনামে উঠে এসেছিল৷দ্বিতীয় টেস্টে বিতর্কে জড়িয়েছেন প্রোটিয়া পেসার কাগিসো রাবাদা৷দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে স্মিথকে আউট করে আবেগ প্রকাশ করতে গিয়ে বিতর্কে জড়ান তিনি৷

ম্যাচটিতে স্টিভ স্মিথকে আউট করে উচ্ছ্বাস ধরে রাখতে পারেননি রাবাদা৷আউট করে আক্রমণাত্মক ভঙ্গিতে স্মিথের দিকে এগিয়ে যান প্রোটিয়া পেসার৷শুধু তাই নয় আউটের পর দু’হাত আকাশের দিকে উচিয়ে স্মিথের দিকে গর্জন করতে থাকেন ঐ পেসার৷সেই সময়ই অজি অধিনায়কের সঙ্গে অনিচ্ছাকৃত ধাক্কাও লাগে তাঁর৷ এই ঘটনায় আইসিসি-র নিময় ভাঙায় দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন তরুণ ক্রিকেটার৷লেভেল টু পর্যায়ের এই অপরাধের জন্য তাঁর ডি-মেরিট পয়েন্টও(তিন পয়েন্ট) কেটে নেওয়া হয়েছে৷এর পাশপাশি রাবাদাকে দুই ম্যাচ নির্বাসন করে আইসিসি৷

মাঠের আগ্রাসনের পরিপন্থি না-হলেও ক্রিকেট মাঠে দু’দলের প্লেয়ারদের ঝামেলায় জড়ানোর ঘটনার সমালোচনা করে প্রাক্তন অজি পেসার লি জানান, ‘আগ্রাসন থাকুক কিন্তু মাঠে কোন খেলোয়াড়কে বর্ণবিদ্বেষীমুলক মন্তব্য কিংবা এমন কোন ভাষার ব্যবহার করা উচিৎ নয় যা অশালীন’৷

এরপর ক্রিকেট মাঠের আগ্রাসনের হয়ে ব্যাট ধরে লি বলেন, ‘দেখুন আমি বলছি না এটা ঠিক আবার এটা ভুলও নয়৷একজন বোলার একটা দারুণ ডেলিভারির পর ব্যাটসম্যানের দিকে তাকাতেও পারবে না কিংবা একজন ব্যাটসম্যান ভালো শটের পর বোলারের দিকে চোখ তুলবে না৷এই পরিস্থিতি আমরা চাই না৷তবে হ্যাঁ, দুটোই যেন একটা সীমারেখা থাকে৷’

এরপর দু’ম্যাচে ১১টি উইকেট নেওয়া প্রোটিয়া বোলার রাবাদার বোলিংয়ের প্রশংসা করে লি বলেন, ‘ ও ভালো বল করে৷পেস আর আগ্রাসন দুটোই রয়েছে ওর বোলিংয়ে৷’

সূত্র: কলকাতা২৪

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: