প্রচ্ছদ / অর্থনীতি / বিস্তারিত

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

সমঝোতায় রবি, এনবিআরও নমনীয়

কারেন্ট নিউজ বিডি   ৫ মার্চ ২০১৮, ৩:২০:৪৩

আদালতের আদেশ বিপক্ষে যাওয়ার পর বকেয়া কর আগামী রবিবারের মধ্যে পরিশোধের অঙ্গীকার করেছে মোবাইল অপারেটর রবি। আজ বৃহস্পতিবার উচ্চ আদালতের আপিল বিভাগ ব্যাংক হিসাব জব্দের সিদ্ধান্ত বহাল রাখলে কোনো উপায় না পেয়ে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড-এনবিআরের সঙ্গে সমাঝোতা করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

বৃহৎ করদাতা ইউনিটে (এলটিইউ) ফাঁকি দেওয়া ভ্যাট পরিশোধের অঙ্গীকারনামা দিয়ে ব্যাংক হিসাব জব্দের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের আবেদন করে রবি। এরই প্রেক্ষিতে এলটিইউ বিকেলে রবির ব্যাংক হিসাব জব্দের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার করে নিয়েছে।

For Advertisement

750px X 80px
Call : +8801911140321

জানা গেছে, সকালে আপিল বিভাগ রবির ব্যাংক হিসাব জব্দের সিদ্ধান্ত বহাল রেখে রায় দেওয়ার পর রবি আজিয়াটা লিমিটেডের প্রধান অর্থ কর্মকর্তা (সিএফও) রনি থমি সই করা একটি অঙ্গীকারনামার চিঠি এলটিইউ কমিশনার বরাবর পাঠানো হয়। এরপর রবির দেওয়া চিঠিতে সরকারি পাওনা পরিশোধের অঙ্গীকারনামা দেওয়ায় বৃহস্পতিবার বিকেলে প্রতিষ্ঠানটির ব্যাংক হিসাব খুলে দিতে সব ব্যাংককে চিঠি দিয়েছে এলটিইউ।

সকল ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালককে দেওয়া চিঠিতে বলা হয়, ‘বৃহৎ করদাতা ইউনিট, মূসক দফতরের উক্ত পত্রের মাধ্যমে রবি আজিয়াটা লিমিটেডের ব্যাংক হিসাব অপরিচালনযোগ্য (ফ্রিজ) করার জন্য পত্র প্রেরণ করা হয়। অতঃপর প্রতিষ্ঠান এ মর্মে অঙ্গীকারনামা দেন যে, অবলিম্বে সরকারি পাওনা পরিশোধ করবে। এমতাবস্থায়, প্রতিষ্ঠানটির ব্যাংক হিসাব পরিচালনযোগ্য (আনফ্রিজ) করার অনুরোধ করা হলো।’

এ বিষয়ে এলটিইউ কমিশনার মো. মতিউর রহমান বলেন, ‘রবি আজিয়াটা লিমিটেডের সিইও আমাকে বিদেশ থেকে এসএমএস করেছেন এলটিইউর যে রাজস্ব পাওনা রয়েছে, তা দ্রুতই সমাধান করা হবে। এছাড়া সিএফও আমাকে চিঠি পাঠিয়েছেন আজকে ব্যাংক হিসাব খুলে দিলে রোববার টাকা দিয়ে দেবেন।

তিনি বলেন, ‘বাকি যে রাজস্ব রয়েছে যেগুলোর জন্য মামলা হয়নি, সে টাকাগুলো দ্রুত দিয়ে দেবেন। তাদের কথার ওপর আস্থা রেখেই আমরা তাদের ব্যাংক হিসাব যে অপরিচালনযোগ্য (ফ্রিজ) করেছিলাম, তা আজ পরিচালনযোগ্য (আনফ্রিজ) করে দিয়েছি। আশা করি রবি তাদের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী রোববার সরকারি পাওনা পরিশোধ করে দেবে।’

প্রায় ১৯ কোটি টাকা ভ্যাট ও সম্পূরক শুল্ক ফাঁকির অভিযোগে সোমবার এনবিআরের এলটিইউ থেকে সব ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের কাছে রবির ব্যাংক হিসাব জব্দ করতে চিঠি পাঠানো হয়।

পরে এই সিদ্ধান্তের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট করে রবি।

অভিযোগের বিষয়ে জানা গেছে, রবি অপরিশোধিত সম্পূরক শুল্ক, স্থান ও স্থাপনা ভাড়ার উপর প্রযোজ্য অপরিশোধিত সম্পূরক শুল্ক ও মূসক এবং বিটিসিএলকে দেওয়া সেবার উপর মূসক বাবদ মোট ১৮ কোটি ৭২ লাখ ৩২ টাকা নির্ধারিত সময়ে সরকারি কোষাগারে জমা না করে ফাঁকি দিয়েছে।

এর আগে গত ৬ ফেব্রুয়ারি রবি আজিয়াটা লিমিটেডের কাছে বিভিন্ন বকেয়া ভ্যাট বাবদ ৯২৪ কোটি ৬ লাখ ৩৫ হাজার ৫২৯ টাকা আদায়ে চূড়ান্ত দাবিনামা ইস্যু করে এনবিআর।

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: