প্রচ্ছদ / আইন-অপরাধ / বিস্তারিত

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

যৌনপল্লীতে তরুণী পাচার, আটক ৫

কারেন্ট নিউজ বিডি   ২৫ মার্চ ২০১৮, ৩:৩০:৫০

ঢাকা, ২৫ মার্চকারেন্ট নিউজ বিডি : মা ছাড়া বৃদ্ধ বাবার অভাবের সংসারে ৩ বোন এবং ১ ভাইকে নিয়ে অতিকষ্টে নীলফামারি জেলার জলঢাকা থানার এক স্থানে বসবাস করছিলেন তরুণীটি। অভাবের তাড়নায় এসএসসি পরীক্ষা দেয়াও সম্ভব হচ্ছিলো না তার । বাধ্য হয়েই একটি চাকরি খুঁজে বেড়াচ্ছিলেন তিনি । চাচাতো ভাই সাইদুল ইসলামের হাত ধরে ঢাকায় আসেন । এরপরই প্রতারকদের কবলে পড়েন তিনি ।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, আসামি খলিল মিয়া ২০ মার্চ ভিকটিমকে গার্মেন্টেসএ চাকুরির দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে ঢাকায় তার ভাড়া বাড়িতে নিয়ে যায়। এসময় মেয়েটিকে আটক করে রাখা হয় । ময়মনসিংহের যৌনপল্লীতে বিক্রির উদ্দেশ্যে ২দিন পর ২২ মার্চ নিয়ে আসে।

For Advertisement

750px X 80px
Call : +8801911140321

সেদিনই চক্রের সদস্য আসামি যৌনপল্লীর সর্দারনী জোহরা খাতুনসহ অপরাপর আসামি মিলে শহরের গাঙ্গিনারপাড় ট্রাফিক মোড় এলাকায় বিক্রয়ের লক্ষে টাকা লেনদেন করে । ডিবি পুলিশ ঘটনা আঁচ করতে পেরে তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার করে । এক পর্যায়ে চক্রের সংশ্লিষ্টদের আটক করতে সক্ষম হয় ।পাচারকারী চক্রের ৫ সদস্যকে আটক করা হয় । গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- খলিল মিয়া (৩৫) সাং- গোয়াতলা, শিবচর , মাদারিপুর , বশির মিয়া (৪৩) সাং – চন্দ্রপুর, ভোলা, তারা মিয়া (২৮) পিতা, আজগর আলী , সাং রামকৃষ্ণপুর, থানা হরিরামপুর , জেলা , মানিকগঞ্জ , আসলাম (৫২), পিতা নাসির উদ্দিন,আরকে মিশন রোড, ময়মনসিংহ এবং তার স্ত্রী জোহরা খাতুন (৪৫) ।

ময়মনসিংহ শহরের রমেশ সেন রোডস্থ যৌনপল্লীতে এসএসসি পরীক্ষার্থী তরুণীকে পাচারের সময় ৫ জনকে আটক করেছে জেলা গোয়েন্দা সংস্থা (ডিবি পুলিশ)। এসময় ভিকটিমকে উদ্ধার করা হয়েছে। ডিবির ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আশিকুর রহমানের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনার সময় ডিবি পুলিশের পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোখলেছুর রহমান, সেকেন্ড অফিসার ফারুক আহমেদ, উপ পরিদর্শক (এসআই) নাজিম উদ্দিন, এএসআই ওমর ফরুক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এ ব্যাপারে ডিবি পুলিশ বাদী হয়ে কোতয়ালী মডেল থানায় একটি অপহরণ ও মানবপাচারের অভিযোগে মামলা দায়ের করেছে ।

ডিবির এসআই নাজিম উদ্দিন জানান, আটক আসামিরা স্বীকার করে বলেছে যে, তারা মেয়েটিকে ৮০ হাজার টাকায় বিক্রয় করে ছিল । এজন্য তারা যৌনপল্লীর সর্দানী জোহরা দম্পতিকে দায়ি করেন ।

ডিবির ওসি আশিকুর রহমান জানান, জেলা পুলিশ সুপার সৈয়দ নুরুল ইসলাম বিপিএম, পিপিএম স্যারের নির্দেশনায় এ অভিযান পরিচালনা করা হয় । অভিযান অব্যাহত থাকবে বলেও জানান ওসি আশিকুর রহমান ।

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: