প্রচ্ছদ / খেলাধুলা / বিস্তারিত

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

সংবাদ সম্মেলনে কান্নায় ভেঙে পড়লেন স্মিথ

কারেন্ট নিউজ বিডি   ৩০ মার্চ ২০১৮, ৩:৩০:০৭

ঢাকা, ৩০ মার্চকারেন্ট নিউজ বিডিক্রিকেট বিশ্বে বর্তমান আলোচিত ঘটনা অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ। বল টেম্পারিংয়ের পরিকল্পনার দায়ে নিষিদ্ধ অস্ট্রেলিয়ান তিন ক্রিকেটার দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে বৃহস্পতিবার সিডনি বিমানবন্দরে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পরেছেন অজি অধিনায়ক।

কান্নায় ভেঙে পড়ে স্টিভেন স্মিথ বললেন, আমি বিধ্বস্ত, আমি ক্ষমাপ্রার্থী। আমার সব সতীর্থের কাছে, বিশ্বজুড়ে ক্রিকেট ভক্তদের কাছে এবং সব অস্ট্রেলিয়ানের কাছে, যারা হতাশ ও ক্ষুব্ধ, সবাইকে বলছি, আমি দুঃখিত। কেপ টাউনে যা হয়েছে, ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া এর মধ্যেই তুলে ধরেছে। আজকে আমি এটা পরিষ্কার করে দিতে চাই যে, অস্ট্রেলিয়া দলের অধিনায়ক হিসেবে আমি পুরো দায় নিচ্ছি।

For Advertisement

750px X 80px
Call : +8801911140321

অজি অধিনায়ক জানান, আমি গুরুতর একটি ভুল করে ফেলেছি এবং এখন পরিণতিও আমার জানা আছে। এটা ছিল নেতৃত্বের ব্যর্থতা, আমার নেতৃত্বের। ভুলটা শুধরে দিতে এবং ক্ষতিটা পুষিয়ে নিতে সম্ভব সব কিছুই চেষ্টা করব আমি।

স্মিথের আশা, এই আঁধার পেরিয়ে এক দিন আবার তিনি আসবেন আলোয়। আমি জানি, এটির জন্য সারা জীবনই আমাকে আক্ষেপ করতে হবে। আমি পুরোপুরি হতাশ। আশা করি, একদিন আবার আমি সম্মান ও ক্ষমা অর্জন করতে পারব। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে খেলা, দলকে নেতৃত্ব দিতে পারা ছিল দারুণ গৌরব ও সম্মানের। দুনিয়ার সেরা খেলা ক্রিকেট। এটিই আমার জীবন, আশা করি আবারও জীবন হয়ে উঠবে। আমি দুঃখিত এবং সত্যিই পুরো বিধ্বস্ত।

তিনি বলেন, আমার সকল খেলোয়াড় বন্ধু, ভক্ত, অস্ট্রেলিয়ার সকল নাগরিক ও বিশ্বের সকল ক্রিকেট ফ্যান যারা অনেক ব্যথিত ও রেগে আছেন তাদের কাছে আমি ক্ষমা প্রার্থনা করছি। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া এরইমধ্যে সবকিছু পরিষ্কার করেছে। তারপরেও অধিনায়ক হিসেবে কেপটাউনের ঘটে যাওয়া সবকিছুর দায়ভার আমি নিজের কাঁধে তুলে নিচ্ছি।

ভুল শুধরানোর সর্বাত্মক চেষ্টা করে যাবেন উল্লেখ করে স্মিথ বলেন, আমার বাকিজীবন এটার জন্য আফসোস করে যাব। আশা করি এই সময় আমি সবার কাছে আবারও শ্রদ্ধা ও ক্ষমা পাব।

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: