প্রচ্ছদ / জাতীয় / বিস্তারিত

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

কোটা সংস্কার: সুনির্দিষ্ট আশ্বাস চান আন্দোলনকারীরা

কারেন্ট নিউজ বিডি   ৯ এপ্রিল ২০১৮, ৩:২১:২৪

ঢাকা, ০৯ এপ্রিলকারেন্ট নিউজ বিডি : পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে রবিবার দুপুরে কয়েক হাজার সাধারণ শিক্ষার্থী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পদযাত্রা শেষে শাহবাগে এসে অবস্থান নেন। এতে করে শাহবাগ হয়ে যান চলাচল বন্ধ হয়ে পড়ে। কোটা সংস্কারে সুনির্দিষ্ট আশ্বাস না পেলে শাহবাগের অবস্থান থেকে সরবে না বলে জানিয়েছে আন্দোলনকারী সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

সারাদেশের বিাভিন্ন জেলায়ও ইতোমধ্যে সড়ক-মহাসড়ক অবরুদ্ধ করা হয়েছে দাবি করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও আন্দোলনের মূল সমন্বয়ক হাসান আল মামুন বলেন, ‘কোটা সংস্কারের দাবিতে দেশের ৯৭ ভাগ মানুষের সমর্থন রয়েছে। আমরা আশা করব বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে প্রধানমন্ত্রী এ যৌক্তিক দাবি বিবেচনায় নেবেন।’

For Advertisement

750px X 80px
Call : +8801911140321

‘আমাদের দাবি যৌক্তিক এবং পরিষ্কার। সংসদ থেকে কোটা সংস্কারে সুনির্দিষ্ট আশ্বাস চাই। অন্যথা আমাদের এ অবস্থান কর্মসূচি চলতে থাকবে’-যোগ করেন তিনি।

এদিকে, আন্দোলনের সময় শিক্ষার্থীরা শাহবাগ মোড়ে অবস্থান নিলে সেখান দিয়ে গাড়ি চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পুলিশ তাদের ১০ মিনিট অবস্থানের কথা বললেও তারা প্রায় এক ঘণ্টা সেখানে অবস্থান করেন।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের শাহবাগ অবরোধে পুলিশও রয়েছে সতর্ক অবস্থানে। তারা সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে। শাহবাগ পুলিশ বক্সের সামনে বিপুলসংখ্যক পুলিশ লাঠিসোটা, টিয়ারসেল নিয়ে অবস্থান করছে। এছাড়া শাহবাগ থানার সামনে প্রস্তুত রাখা হয়েছে একটি সাঁজোয়া যান। শাহবাগ থানা থেকে সাঁজোয়া যান বের করা হলে সেটির সামনে শুয়ে পড়েন আন্দোলনকারীরা। এ সময় সাঁজোয়া যানের সামনে বুক পেতে দেন তারা। এরপর পুলিশ সাঁজোয়া যান পেছনে নিয়ে যায়।

বেলা ৩টা ৫ মিনিট থেকে শাহবাগ মোড় অবরুদ্ধ করে রাখে শিক্ষার্থীরা। চাকরিতে কোটা পদ্ধতি বিলুপ্ত না করে যৌক্তিক সংস্কারের দাবি করছে তারা। অবরোধে শিক্ষার্থীরা কোটা পদ্ধতি সংস্কারের পক্ষে বিভিন্ন স্লোগানও দিচ্ছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হল ও আশপাশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে কয়েক হাজার শিক্ষার্থীরা এ কর্মসূচিতে যোগ দিয়েছেন। মিছিলে স্লোগান দেওয়া হচ্ছে-‘বঙ্গবন্ধুর বাংলায়, বৈষম্যের ঠাঁই নাই’, ‘শেখ হাসিনার বাংলায়, বৈষম্যের ঠাঁই নাই,’ ‘আমাদের দাবি আমাদের দাবি, মানতে হবে মেনে নাও,’ ‘কোটা দিয়ে কামলা নয়, মেধা দিয়ে আমলা চাই,’ ‘১০% এর বেশি কোটা নয়।’

প্রসঙ্গত, কোটা সংস্কারে গত ১৪ ফেব্রুয়ারি থেকে পাঁচ দফা দাবিতে আন্দোলন করে আসছেন শিক্ষার্থীরা। তাদের দাবিগুলো হলো- কোটা সংস্কার করে ৫৬ থেকে ১০ শতাংশে কমিয়ে আনা, কোটা প্রার্থী না পাওয়া গেলে শূন্যপদগুলোতে মেধার ভিত্তিতে নিয়োগ দেয়া, চাকরি নিয়োগ পরীক্ষায় কোটা সুবিধা একাধিকবার ব্যবহার না করা, কোটায় কোনো ধরনের বিশেষ নিয়োগ পরীক্ষা না নেয়া এবং চাকরি ক্ষেত্রে সবার জন্য অভিন্ন কাট মার্ক ও বয়সসীমা নির্ধারণ করা।

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: