প্রচ্ছদ / ঢাকা / বিস্তারিত

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

ফরিদপুরে সাবেক স্বামীর ছুরিকাঘাতে গৃহবধূ নিহত

কারেন্ট নিউজ বিডি   ১২ এপ্রিল ২০১৮, ৪:১১:১৯
ঢাকা, ১২ এপ্রিল, কারেন্ট নিউজ বিডি : ঔষধ কিনে বাড়ী ফেরার সময় ওৎ পেতে থাকা সাবেক স্বামীর ছুরিকাঘাতে গুরুত্বর আহত হয় রিক্তা বেগম (২২) নামে এক গৃহবধূ। ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে মঙ্গলবার দুপুরে তার মৃত্যু হয়। সোমবার রাত নয়টার দিকে ফরিদপুর চরভদ্রাসন উপজেলার পরিষদ সংলগ্ন চরভদ্রাসন মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পিছনের মাঠে তাকে ছুরিকাঘাত করা হয়।

গত ৮ মার্চ সদরপুর থানার বাবুরচর খালাশী ডাঙ্গী গ্রামের আলী আহমেদের পূত্র শাহ জালাল উদ্দিনের কাছে বাসা ভাড়া দেন চরভদ্রাসন বাজারের ঔষুধ ব্যবসায়ী মো: ইউসুফ আলী। বাসা মালিক ইউসুফ জানান, জালাল তাকে সদরপুর বাজারে জান্নাত সুইং নামে একটি দোকানের স্বত্বাধিকারী বলে জানায়। রিক্তা তার স্ত্রী এমন পরিচয় দেয়। ঘটনার রাতে রিক্তা তার দোকন থেকে ঔষুধ নিয়ে বাড়ী ফেরার সময় তার পূর্বের স্বামী ছুরি দিয়ে আঘাত করে। রিক্তার চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা তাকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে আসে।

এসয় তার পেটে বিধে থাকা ছুরিটি বের করে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। রিক্তার বর্তমান স্বামী জালালউদ্দিন বলেন, তার দোকানে পোশাক তৈরী করতে এসে পরিচয় সদরপুর উপজেলার খেজুর তলার বিশ্বাস ডাঙ্গী গ্রামের কালাম মোল্যার মেয়ে রিক্তার সাথে। সম্পর্কের এক পর্যায়ে দুজন গোপনে বিয়ে করে।

For Advertisement

750px X 80px
Call : +8801911140321

পরে চরভদ্রসনে বাসা ভাড়া করে দিয়ে রিক্তাকে ভরন পোষন দিতে থাকে জালাল। জান্নাত নামে তার একটি ৫ বছরের মেয়ে রয়েছে। রিক্তা তার প্রথম স্বামীকে তালাক দিয়েছে বলে জালাল দাবী করে। চরভদ্রাসন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাম প্রসাদ ভক্ত ঘটানার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, নিহত রিক্তার প্রথম স্বামী আলমগীরের বাড়ী কুষ্টিয়ার দৌলতপুর থানার খরিবোনা গ্রামে। তাকে আটকের চেষ্টা চলছে। এ ব্যপারে একটি হত্যা মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে।

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: