প্রচ্ছদ / রাজনীতি / বিস্তারিত
 

For Advertisement

600 X 120

নিজেদের কোন্দল নির্বাচনে বড় বিপদের কারণ হতে পারে: কাদের

১৭ এপ্রিল ২০১৮, ৮:৫৭:৩৯
ঢাকা, ১৭ এপ্রিল, কারেন্ট নিউজ বিডি : নিজেদের মধ্যকার বিরোধ আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে বড় বিপদের কারণ হতে পারে উল্লেখ করে কোন্দল মিটিয়ে ফেলতে নেতাকর্মীদের নির্দেশনা দিয়ে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘নির্বাচনের ছয় মাসের বেশি নাই। ঘরে ঘরে গিয়ে সদস্য সংগ্রহ করতে হবে। নির্বাচনে কেন্দ্র কমিটি ও পোলিং এজেন্ট ঠিক করতে হবে। নিজেদের কোন্দল মিটিয়ে ফেলতে হবে।’

আজ মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ নির্দেশনা দেন।

তিনি বলেন, আমাদের বিভিন্ন কমিটির মধ্যে কিছু সমস্যা আছে। সেখানে বাদ পড়াদের সংযুক্ত করে নিতে হবে। নয়তো নির্বাচনে বড় বিপদের কারণ হতে পারে। নিজেরা নিজেদের সঙ্গে ঝগড়া করে লাভ হবে না।

 

For Advertisement

600 X 120

বিলবোর্ড কাউকে মনোনয়ন দেবে না উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, জনমত জরিপে যারা এগিয়ে থাকবে কারা নমিনেশন পাবে। বিলবোর্ড কাউকে মনোনয় দেবে না।

তারেক রহমান ঢাকা বিশ্বিবিদ্যালয়কে অস্থিতিশীল করতে অডিও বার্তা পাঠিয়েছিল দাবি করে তিনি বলেন, লন্ডনে বসে তারেক রহমান দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। কোটা সংস্কার আন্দোলনকে সরকার বিরোধী আন্দোলনে রূপ দিতে টাকা বিলানো হয়েছিল।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে তাদের সব ষড়যন্ত্র ব্যর্থ করে দেয়া হয়েছে। তাই শেখ হাসিনার ঘোষণা আন্দোলনকারীদের স্বস্তি দিলেও বিএনপি শান্তিতে নেই।

নির্বাচনে বিএনপি মুক্তিযুদ্ধকে ব্যবহার করে উল্লেখ করে তিনি বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার যারা সমর্থন করেনি, তারা পাকিস্তানের দাসত্ব করে। কারণ তারা ৭ মার্চের ভাষণ ও মুজিবনগর সরকারকে স্বীকৃতি দেয়নি। তারা এটা অন্তরে ও চেতনায় লালন করে না। শুধুমাত্র নির্বাচনের সময় মুক্তিযুদ্ধকে ব্যবহার করে।

তিনি বলেন, দুর্ঘটনাক্রমে অনেকেই মুক্তিযোদ্ধা। কিন্তু বিএনপি বিজয় দিবস ও স্বাধীনতা দিবসেও বঙ্গবন্ধুর নাম উচ্চারণ করে না।

ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি এ কে এম রহমতউল্লাহ এমপির সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন- আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন, আবদুল মতিন খসরু, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল, যুগ্ম-সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, দফতর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম প্রমুখ।

 

For Advertisement

600 X 120

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: