প্রচ্ছদ / আইন-অপরাধ / বিস্তারিত

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

কুমিল্লায় জুয়ায় ‘বউ বন্ধক’ অতপর জুয়াড়িদের ‘জুতাপেটা’

কারেন্ট নিউজ বিডি   ২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬:১৪:৩৬

ঢাকা, ০২  সেপ্টেম্বর, কারেন্ট নিউজ বিডি : সিনেমা নাটকে বৌ ‘বন্ধক’ নিয়ে অনেক চলচ্চিত্র থাকলেও বাস্তব জীবনে বৌ বন্ধকের ঘটনা বিরল। কিন্তু বাংলা চলচ্চিত্রের ‘বৌ বন্ধক’ নামে সিনেমাটির বাস্তব রূপ দিয়েছে কুমিল্লার চান্দিনা উপজেলার এক জুয়াড়ী যুবক।

উপজেলার মাধাইয়া ইউনিয়নের নাওতলা গ্রামের আল-আমিন (২২) নামে এক যুবক জুয়া খেলায় সর্বস্ব হারিয়ে অবশেষে ৪ হাজার টাকা ধার নেয় সাথের আরেক জোয়াড়ি কামাল এর কাছে থেকে। ওই টাকা পরিশোধ করতে ব্যর্থ হলে অবশেষে নিজের বৌকে বন্ধক দেয় পাওনাদার কামাল এর কাছে।

For Advertisement

750px X 80px
Call : +8801911140321

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কামাল ও আল-আমিন সহ বেশ কয়েকজন যুবক একসাথে প্রতিদিন এলাকায় জুয়া খেলে। গত সোমবার আল-আমিন জুয়ায় হেরে কামাল এর কাছ থেকে ৪ হাজার টাকা ধার নেয়। পরদিন মঙ্গলবার আবারও জুয়ার আসরে বসার পর কামাল আল-আমিন এর কাছ থেকে আগের পাওনা টাকা চায়।

কিন্তু আল-আমিন ওই টাকা দিতে পারছিল না। এসময় কামাল টাকার পরিবর্তে তার (আল-আমিন) বউকে চেয়ে বলে- ‘টাকা দিতে না পারলে তোর বৌকে দুই দিনের জন্য আমার কাছে বন্ধক দে। এক পর্যায়ে আল-আমিন রাজি হয়।

বুধবার দুপুরে আল-আমিন বৌকে বন্ধক রাখতে নিজের স্ত্রীকে কামাল এর সাথে রাত্রি যাপনের জন্য নির্দেশ দিয়ে বলে- ‘আজ রাতে কামাল আসবো। তার সাথে দুই রাত্র কাটাইতে হইবো।’ এ নিয়ে তাদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ হয়।

বিকেলে আল-আমিন বাড়ি থেকে বের হয়ে গেলে তার স্ত্রী বাড়ির অন্যান্য লোকজনদের বিষয়টি জানায়। পূর্ব কথামত বুধবার রাত ১০টায় কামাল আল-আমিন এর ঘরে প্রবেশ করলে আশ-পাশের লোকজন কামালকে আটক করে মারধর করে। এ ঘটনায় এলাকায় আলোচনা-সমালোচনার ঝড় উঠে।

পরদিন বৃহস্পতিবার বিষয়টি এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের কানে গেলে শুক্রবার রাতে মাধাইয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান অহিদ উল্লাহ এর সভাপতিত্বে সাবেক চেয়ারম্যান বাচ্চু মিয়া, ওয়ার্ড মেম্বার আব্দুল হালিম, সাবেক মেম্বার আব্দুল মমিন এর উপস্থিত শালিশে বৌ বন্ধক দাতা আল-আমিন ও বন্ধক গ্রহিতা কামালকে দোষি সাম্ভ্যস্ত করে তাদেরকে জুতা পেটা করে।

এ ব্যাপারে ওয়ার্ড মেম্বার আব্দুল হালিম জানায়, ঘটনাটি শুনেছি। তবে শালিশ দরবারে শুরু থেকে ছিলাম না মাঝামাঝি অবস্থায় শালিশে হাজির হয়েছি। শালিশের রায় অনুসারে তাদেরকে জুতাপেটা করা হয়েছে। এব্যাপারে মাধাইয়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. অহিদ উল্লাহ জানান, এ ঘটনাটি অত্যন্ত দুঃখজনক। এলাকার সম্মানহানীও বটে।

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: