For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

নোবিপ্রবি’র ছাত্রী হলে র‍্যাগিং-এর অভিযোগ

কারেন্ট নিউজ বিডি   ১ অক্টোবর ২০১৮, ৩:০১:৪২

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (নোবিপ্রবি) হযরত বিবি খাদিজা ছাত্রী হলে গত (২৯ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের একাদশ, দ্বাদশ এবং ত্রয়োদশ ব্যাচের শিক্ষার্থীদেরকে র‍্যাগিং ও মানসিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে।

র‍্যাগিংয়ের শিকার ইংরেজি বিভাগের একাদশ ব্যাচের শিক্ষার্থী তামান্না জানান, ‘গতকাল কোন কারণ ছাড়াই অষ্টম ব্যাচের দোলন আপু, জাকিয়া আপু, ৯ম ব্যাচের বীণা আপু,সুইটি আপু সহ কয়েকজন সিনয়ির আপু আমাদের ডাকেন। আমরা যাবার পরপরই তারা আমাদের অকথ্য ভাষায় গালাগাল শুরু করেন এবং বিভিন্ন ছুতায় আমাদের পরিবার থেকে কোন প্রকার ভদ্রতা শেখানো হয়নি বলে রাগারাগি করে। আমরা বারবার তাদের কাছে আমাদের কোন প্রকার ভুল হয়ে থাকলে ক্ষমা চাইলেও তারা তিন থেকে চার ঘন্টা দাড়া করিয়ে রাগারাগি করেন।’

For Advertisement

750px X 80px
Call : +8801911140321

বিশেষ সূত্রে জানা যায়, গত ২৮ তারিখ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭২ তম জন্মদিন পালন উপলক্ষে বিবি খাদিজা হলে আয়োজন করা অনুষ্ঠানে কেক খাওয়ার সময় ধাক্কাধাক্কি হয়। এছাড়াও হল ক্যান্টিনসহ হলে সিনিয়র এবং জুনিয়রদের সাথে বিভিন্ন মনমালিন্যের থেকেই এই ঘটনার সূত্রপাত বলে জানা যায়।

ফার্মেসি বিভাগের একাদশ ব্যাচের শিক্ষার্থী রুনা বলেন, সিনিয়র জুনিয়র ভারসাম্য বজায় না রাখার অভিযোগে হলে বসবাসকারী অষ্টম ব্যাচের দোলন, নবম ব্যাচের বীণা, সুইটি সহ আরো বেশ কয়েকজন আপু হলে বসবাসকারী একাদশ ব্যাচ থেকে ত্রয়োদশ ব্যাচের মেয়েদের হলের রিডিং রুমে ডেকে নিয়ে তাদের অকথ্য ভাষায় গালাগাল করে এবং তাদেরকে সালাম না দিয়ে হলে উঠা মেয়েদের হল থেকে বের করে দেয়ার হুমকি দেয়।

তারা আরো জানায়, কোন ধরনের কারণ ছাড়াই আনুমানিক তিনঘন্টার মত তাদেরকে সবার সামনে লাঞ্চিত করা হয় । এরফলে পরবর্তী দিন পরীক্ষা থাকা স্বত্ত্বেও অনেকেরই স্বাভাবিক পড়ালেখা ব্যাহত হয় এবং অতিরিক্ত গরমে আবদ্ধ থাকার কারণে আখি এবং মলিসহ আরো বেশ কয়েকজন শিক্ষাথী অসুস্থ হয়ে পড়ে। কিন্তু তাদের শুশ্রুষার জন্য কাউকে এগুতে দেয়া হয়নি বলে ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করেন।

এ ব্যাপারে বিবিএ নবম ব্যাচের বীণার কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান, ‘গতকাল যা হয়েছে তা সুধুমাত্র সিনিয়র জুনিয়রের মাঝে সুসম্পর্ক বজায় রাখার জন্য করা হয়েছে। এর আগে আমরা কোন ভুল করলে আমাদের সিনিয়র আপুরাও আমাদের ডেকে ঠিক অভিভাবকের মতই শাসন করে ভুল গুলো ধরিয়ে দিতেন। জুনিয়রদের অভিযোগ সম্পর্কে বলতে চাই তাদেরকে কোনরকম র‍্যাগ বা মানসিক নির্যাতনের জন্য নয় বরং বড়দের সম্মানের বিষয় তাদের সামনে তুলে ধরেছি।’

ইংরেজী অষ্টম ব্যাচের দোলন বলেন, ‘গতকাল যে ঘটনা হইছে তা তেমন বলার মত কিছুই ঘটেনি। তার পরেও তারা যদি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বরাবর কোন কোন অভিযোগ দেয়, তবে আমি এ অভিযোগের জবাবদিহি করব।’

এ ব্যাপারে হল প্রাধাক্ষ্য ডঃ আতিকুর রহমান ভূঞা জানান, ‘ছাত্রীদের পক্ষ থেকে এখনো কোন লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়নি। অভিযোগ দেয়া হলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: