প্রচ্ছদ / ঢাকা / বিস্তারিত

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

স্ত্রীকে হত্যা করে থানায় স্বামী

কারেন্ট নিউজ বিডি   ৬ অক্টোবর ২০১৮, ১২:৩৮:৫০

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গৃহবধূ আফরিন আক্তার রানীকে (২৩) শ্বাসরোধে হত্যা করে থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করেছে তার স্বামী মেহেদী হাসান (৩০)।

শুক্রবার (৫ অক্টোবর) দুপুরে ফতুল্লার চাঁদনী হাউজিং এলাকার ওমর ফারুকের বাড়ির ২য় তলা থেকে আফরিন আক্তার রানীর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ১০০ শয্যা বিশিষ্ট নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

For Advertisement

750px X 80px
Call : +8801911140321

নিহত আফরিন আক্তার রানী নাটোর জেলার বাঘাদিপাড়ার সরদীয়া এলাকার আব্দুর রহিমের মেয়ে।

ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মামুন আল আবেদ জানান, গত দুই বছর আগে আফরিন আক্তার রানীকে বিয়ে করে মেহেদী হাসান। বিয়ে করে তারা ফতুল্লার চাঁদনী হাউজিং এলাকার ওমর ফারুকের বাড়ির ২য় তলায় ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করে আসছিল। বৃহস্পতিবার রাতে মোবাইলের চার্জ দেয়া নিয়ে স্বামী স্ত্রীর ঝগড়ার একপর্যায়ে মেহেদী তার স্ত্রীকে গলায় গামছা পেচিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করে।

ফতুল্লা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এস এম মঞ্জুর কাদের জানান, সকালে ঘাতক মেহেদি নিজেই থানায় এসে অসংলগ্ন আচরণ শুরু করে। পরে এক পুলিশ সদস্যকে স্ত্রীকে খুন করার ঘটনা বর্ণনা করে অনুশোচনা করে। তাকে থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এই হত্যাকাণ্ডের পেছনে পারিবারিক ঝগড়া নাকি অন্য কোন কারণ আছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

ওসি মঞ্জুর কাদের জানান, স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পণকারী স্ত্রী হত্যাকারী মেহেদির বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার প্রস্তুতি চলছে।

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: