প্রচ্ছদ / ঢাকা / বিস্তারিত

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

এক বছরেও খোঁজ মেলেনি গৃহবধু ঝর্ণার

কারেন্ট নিউজ বিডি   ৭ অক্টোবর ২০১৮, ১২:৫৭:৩৩

এক বছর পেরিয়ে গেলেও সন্ধান মেলেনি ধামরাইয়ের নিখোঁজ হওয়া গৃহবধূ ঝর্ণা আক্তারের। মামলা সূত্রে ৩ আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদ করেও হদিস মেলেনি ঝর্ণার। উল্টো মামলা তুলে নিতে বাদীকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে আসামিরা এমন অভিযোগ করেছেন মামলার বাদীরা।

উপজেলার কাইজারকুন্ড গ্রামের আব্দুস সাত্তারের ছেলে শাহদাত হোসেনের সঙ্গে গত বছরের ১৩ই মার্চ বিয়ে হয় গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার বড় মাটিয়া গ্রামের রওশন আলমের মেয়ে ঝর্ণা আক্তারের। বিয়ের পর থেকেই ১ লাখ টাকা যৌতুকের জন্যে স্বামীসহ শ্বশুড়বাড়ীর লোকজনের হাতে নির্যাতনের শিকার হয়ে আসছিলো ঝর্ণা।

For Advertisement

750px X 80px
Call : +8801911140321

এরই মধ্যে গত বছর (২০১৭) ২৫ সেপ্টেম্বর যৌতুকের টাকা না পেয়ে দ্বিতীয় বিয়ের অনুমতিপত্র হিসেবে স্ট্যাম্পে জোরপূর্বক স্বাক্ষর নেয় শাহাদাত। পরে এ নিয়ে সালিশি বৈঠকে স্ট্যাম্প উদ্ধার করেন এলাকার মাতব্বররা। সেদিন রাতেই স্বামীর বাড়ী থেকে নিখোঁজ হন গৃহবধু ঝর্ণা আক্তার।

এ ঘটনায় বাদী হয়ে ধামরাই থানায় গুমের অভিযোগে ঝর্ণার বাবা রওশন আলম মামলা দায়ের করেন ঝর্ণার স্বামী শাহাদাত হোসেন, শ্বশুর আব্দুস সাত্তার, শ্বাশুড়ি হালিমা বেগম, দেবর সাইদুল, মোস্তফা ও ননদ আমেনা আক্তারসহ ৭ জনের নামে। এ ঘটনায় ঝর্নার স্বামী শাহাদাত, ননদ আমেনা ও দেবর সাইদুলকে গ্রেফতারের পর রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ করেও তাদের কাছ থেকে কোন তথ্য আদায় করতে পারেনি পুলিশ। বর্তমানে শাহাদাত জেলহাজতে থাকলেও অন্যরা জামিনে আছে।

মামলার বাদী রওশন আলম অভিযোগ করেন, মামলা তুলে নেওয়ার জন্যে ঝর্ণার দেবর ও শাহাদাতরের ভাই মোস্তফার শ্যালক তাকে হত্যার হুমকি দিচ্ছে।

এ বিষয়ে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ ইনভেস্টিগেশন ব্যুরো (পিবিআই) এর পরিদর্শক নুরুন্নবী বলেন, গৃহবধু ঝর্ণা আক্তারকে গুম করার অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত সত্যতা পাওয়ায় স্বামীসহ ৭ আসামির বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়েছে।

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: