প্রচ্ছদ / স্বাস্থ্য / বিস্তারিত

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

এসব অভ্যাস ত্যাগ না করলে কমবে না ওজন

কারেন্ট নিউজ বিডি   ৬ মার্চ ২০১৮, ১১:৪৮:৫১

ওজন নিয়ে আক্ষেপ প্রায় প্রত্যেক নারীর। আর এই ওজন কমানোর জন্য চলে কত ডায়েট, কত ব্যায়াম আর কত কী! কিন্তু আপনি কি জানেন, আপনার দৈনিক কিছু অভ্যাসই মূলত আপনার ওজন কমাতে বাধা দিচ্ছে? অবাক হওয়ার কিছুই নেই। জেনে নিন কোন অভ্যাসগুলো আপনার ওজন হ্রাসে বাধা-
অপর্যাপ্ত ঘুম :
অনেকে বলে থাকেন বেশি ঘুমালে ওজন বেড়ে যায়। ঠিক তেমনি অপর্যাপ্ত ঘুমও ওজন বৃদ্ধিতে ভূমিকা পালন করে। আপনার শরীর যদি পর্যপ্ত বিশ্রাম না পায় তবে তা ক্যালরি পোড়াতে ব্যর্থ হয় আর কমে না ওজন।
অতিরিক্ত ব্যায়াম করা :
অতিরিক্ত ব্যায়ামও ওজন হ্রাসে বাধা প্রদান করে। অনেকে মনে করেন যে পরিমাণ খাবার গ্রহণ করা হয় সে পরিমাণ ব্যায়াম করা উচিত। কিন্তু তা নয়। ডায়েটের ক্ষেত্রে আপনার ৮০:২০ মেনে চলা উচিত। অর্থাৎ ৮০% ডায়েট এবং ২০% ব্যায়াম করুন ওজন কমানোর জন্য।
দ্রুত খাওয়া :
আপনি যত বেশি চিবিয়ে খাবেন তত বেশি পেট ভরা অনুভব করবেন। খাবার চিবানোর সময় এক ধরনের পর্দাথ বের হয় যা আপনার মস্তিস্কে পেট ভরা সংকেত প্রদান করে। কমপক্ষে ১২ বার চিবিয়ে খাবার খাওয়া উচিত।
সকালের নাস্তা না করা :
আপনি যদি মনে করেন সকালের নাস্তা না খেয়ে ওজন কমাবেন তবে আপনি ভুলের রাজ্যে বসবাস করছেন। ঘুম থেকে ওঠার ২ ঘণ্টার মধ্যে খাবার খাওয়া বেশ গুরুত্বপূর্ণ। সকালে নাস্তা আপনাকে সারাদিনের কাজের শক্তি প্রদান করে থাকে। ফ্যাট খাবার রাখার পরিবর্তে প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার রাখুন সকালের নাস্তায়।
রাতের খাবার তাড়াতাড়ি খাওয়া :
পুষ্টিবিদরা রাতের খাবার তাড়াতাড়ি খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন। তবে আপনি যদি রাত ১২টায় ঘুমাতে যান, আর রাতের খাবার সন্ধ্যা ৭টায় খেয়ে ফেলেন। এটি আপনার স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। ঘুমাতে যাওয়ার কয়েক ঘণ্টা আগে রাতের খাবার খান।
দীর্ঘক্ষণ না খেয়ে থাকা :
খাবারের পরিমাণ নিয়ন্ত্রণ করা ওজন কমানোর জন্য বেশ কার্যকর। কিন্তু দীর্ঘক্ষণ অভুক্ত থাকা স্বাস্থ্যের জন্য ভাল নয়। এমনকি কার্বোহাইড্রেট বাদ দিয়ে শুধু সালাদ খেয়ে ওজন কমানো কোনো বুদ্ধিমানের কাজ নয়। সালাদের সঙ্গে কার্বোহাইড্রেট রাখুন

For Advertisement

750px X 80px
Call : +8801911140321

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: