জবি ছাত্রলীগ সা: সম্পাদকের উদ্যোগে ‘পথশিশু স্কুল’ চালু

১০ অক্টোবর ২০১৮, ৩:৩৭:১১

“পড়বে পথ শিশু, গড়বে দেশ। পথ হারাবে না বাংলাদেশ। ” এই প্রত্যয় নিয়ে নিরক্ষরমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে সদরঘাট, জবি ও এর আশেপাশের পথ শিশুদের জন্য জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক শেখ জয়নুল আবেদীন রাসেল গরে তুলেছেন ‘পথ শিশু স্কুল’।

শিক্ষা জাতির মেরেদন্ড। একটা দেশ একটা উন্নত, তা নির্ভর করে সে দেশ কতটা শিক্ষিত। কারণ যার মধ্যে শিক্ষার আলো নাই, তারমধ্যে মূল্যবোধ এবং ভালমন্দ সম্পর্কে জ্ঞান নাই।

বাংলাদেশের এক জরিপে দেখা যায়, দেশের যত অপরাধ যেমনঃ ছিনতাই, চুরি, মাদক ব্যাবসা ইত্যাদি প্রায় সবগুলোর ই অশিক্ষিত পথ শিশুদের দ্বারা সংগঠিত হয়। আর পথ শিশুরা এমন কাজ করার পেছনে দায়ী হল, তাদের অভাব ও নিরক্ষরতা। তাই যদি তাদের অভাব দুর করা যায় এবং তাদের মধ্যে নূন্যতম শিক্ষার আলো পৌছানো যায়, তাহলেই দেশ থেকে অপরাধমুলক কাজ উঠে যাবে। দেশ হবে শতভাগ শিক্ষিত, অপরাধ মুক্ত সোনার বাংলাদেশ।

তাই নুন্যতম খাদ্য অভাব, প্রাথমিক শিক্ষা নিশ্চয়তার জন্য শেখ জয়নুল আবেদিন রাসেল মঙ্গলবার (৯ অক্টোবর) বিকেলে জবির প্রস্তাবিত টিএসসিতে এই স্কুল উদ্ভোধন করেন।

এসময় রাসেল বলেন, কেওই আসলে পথ শিশু হিসাবে জন্মগ্রহন করেনা। সব পথশিশু হওয়ার পেছনে কিছুনা কিছু কারণ থাকে। কিন্তু নানা ধরণের প্রতিবন্ধকতার জন্য তারা পড়াশুনা করতে পারেনা। আমাদের এই স্কুলের মাধ্যমে তাদের শিক্ষার নুন্যতম ব্যাবস্থা নেওা হবে। তারা সবাই যেন অন্তত নিজের নাম ঠিকানা লিখতে পারে সেই জন্য কাজ করা হবে। এছাড়া তাদের উৎসাহিত করতে প্রতিদিন বিকেলে খাবারের ব্যাবস্থা করা হবে।

এসময় আগামী নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পুনরায় ক্ষমতায় আনতে সকলের প্রতি আহবান জানান তিনি।

স্কুলটি প্রতিদিন বিকেল ৮টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত চলবে। জবি শাখা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরাই এখানে পাঠদান করাবেন। প্রতোজনীয় বই খাতা ও প্রতিদিন পথশিশুদের জন্য খাবারের ব্যাবস্থা করা হবে বলে জানান উদ্যোক্তারা।

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: