প্রচ্ছদ / খেলাধুলা / বিস্তারিত

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

লিটনের ডাবল সেঞ্চুরি

কারেন্ট নিউজ বিডি   ১১ অক্টোবর ২০১৮, ১২:৪৯:৪০

জাতীয় ক্রিকেট লিগে জ্বলে উঠেছেন লিটন কুমার দাস। রংপুরের এই ওপেনার বুধবার দ্বিতীয় রাউন্ডের দ্বিতীয় ইনিংসে দ্রুততম ডাবল সেঞ্চুরির রেকর্ড করলেন। ১৪২ বলে ২০৩ রান করে লিটন ফিরেছেন। ৮১ বলে সেঞ্চুরি তুলে নেওয়ার পর ডাবল সেঞ্চুরি করলেন ১৪০ বলে। দেশের পক্ষে প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে যা দ্রুততম ডাবল সেঞ্চুরি। আগের রেকর্ডটিও ছিল লিটন দাসের। গেল এপ্রিলে ১৯০ বলে ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন তিনি। খেলেছিলেন ২৭৪ রানের ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস। এদিন অবশ্য দাপুটে ডাবল সেঞ্চুরি তোলার পরই ফিরে যান। ৩২টি চারের সঙ্গে এদিন ৪টি ছক্কাও হাঁকিয়েছেন লিটন।

লিটন দাসের ব্যাটে রাজশাহীর বিপক্ষে তৃতীয় দিনের খেলা শেষে লড়াইয়ে টিকে আছে রংপুর। নিজেদের প্রথম ইনিংসে মাত্র ১৫১ রান করেছিল রংপুর। বিপরীতে ৪ উইকেটে ৫৮৯ রান করে ইনিংস ঘোষণা করে রাজশাহী। নাজমুল হোসেন শান্ত ও মিজানুর রহমানের পর সেঞ্চুরি করেন জুনায়েদ সিদ্দিকী। ১০০ রানে অপরাজিত ছিলেন।

For Advertisement

750px X 80px
Call : +8801911140321

প্রথম ইনিংসে ৪৩৮ রানের লিড পাওয়া রাজশাহীর বিপক্ষে ইনিংস পরাজয়ের শঙ্কা নিয়ে ব্যাটিং শুরু করে রংপুর। কিন্তু লিটনের বিস্ফোরক ব্যাটিংয়ে লড়াইয়ে টিকে তারা। আরেক ওপেনার জাহিদ জাবেদ ৩৫ রান করে ফিরেন। মাহমুদুল হাসান ৭২ ও সাজেদুল ইসলাম ২ রানে অপরাজিত থেকে দিনের খেলা শেষ করেছেন।

দিনের খেলা শেষ হওয়ার দুই বল আগে তাইজুল ইসলামের বলে আউট হয় লিটন।বিসিএলে পূর্বাঞ্চলের হয়ে মধ্যাঞ্চলের বিপক্ষে ২৭৪ রানের ইনিংস খেলেছিলেন লিটন। যা তার ক্যারিয়ার সেরা। সেই ইনিংস খেলার পথে দ্রুততম ডাবল সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়েছিলেন। ছাড়িয়ে গিয়েছিলেন মোসাদ্দেক হোসেনকে। আর এদিন নিজেকে ছাড়িয়ে গড়লেন নতুন রেকর্ড।

মোসাদ্দেক ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন ২২৯ বলে। ২৩০ বলে ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন আব্দুল মজিদ। যিনি দ্রুততম ডাবল সেঞ্চুরির তালিকায় এখন চতুর্থ স্থানে। মোসাদ্দেক এবং মজিদ ২০১৪-১৫ মৌসুমে একই ম্যাচে ওই কীর্তি দুটি গড়েন। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে দ্রুততম ডাবল সেঞ্চুরির বিশ্ব রেকর্ডটি আফগানিস্তানের শফিকউল্লাহ শাফাকের। ৮৯ বলে ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন তিনি।

For Advertisement

750px X 80px Call : +8801911140321

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: