প্রচ্ছদ / খেলাধুলা / বিস্তারিত

বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের পঞ্চম আসর

সেমিতেই বাজলো বিদায় ঘন্টা

১১ অক্টোবর ২০১৮, ১২:৫৯:১০

কদিন আগে ঘরের মাঠে অনুষ্ঠিত সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে দারুণ শুরু করেও গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিতে হয়েছিলো বাংলাদেশকে।লাওসকে হারিয়ে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের পঞ্চম আসরের উদ্বোধনী ম্যাচে দারুন শুরু করেছিল বাংলাদেশ। এই জয়ের কারণে স্বাগতিক দর্শকদের প্রত্যাশাটা বেড়ে গিয়েছিল অনেক বেশি। সেমিফাইনালে এসেই থেমে গেলো বাংলাদেশ।

ম্যাচটি শুরু হয় দুপুর আড়াইটায়। ম্যাচের প্রায় পুরো সময় জুড়েই বৃষ্টি হয়েছে। কিন্তু বৃষ্টি হলেও খেলা বন্ধ হয়নি। দর্শকরাও ভিজে ভিজে খেলা উপভোগ করছেন। বৃষ্টির কারণে মাঠও পিচ্ছিল হয়ে গিয়েছিল। অনেক জায়গায় কাদা জমে। বুধবার কক্সবাজারে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে শুরুতেই পিছিয়ে যায় বাংলাদেশ। ম্যাচের নবম মিনিটে মোহাম্মদ বালাহর গোলে ১-০ গোলে এগিয়ে যায় ফিলিস্তিন। প্রথমার্ধে আর কোনো গোল হয়নি। ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় ফিলিস্তিন।

ফিলিস্তিনি চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে ব্যর্থ হয় জামাল ভুইয়ারা। বুধবার (১০ অক্টোবর) দুপুরে কক্সবাজারের বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত সেমিফাইনালে ফিলিস্তিনের কাছে ২-০ গোলে হেরে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ থেকে বিদায় নিল বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল। বিরতির পর লড়াই জমে উঠে। বাংলাদেশ বারবার আক্রমণে গিয়েও গোলের দেখা পায়নি। বাংলাদেশ শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত ম্যাচে ফেরার আপ্রাণ চেষ্টা করেছে। কিন্তু ম্যাচ শেষ হওয়ার আগ মুহূর্তে তথা অতিরিক্ত সময়ে ২-০ গোলে এগিয়ে যায় ফিলিস্তিন। (৯০+৪) মিনিটে গোলটি করেন সামেহ মারাবা। এর ফলে ২-০ ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ফিলিস্তিন।

‘বি’ গ্রুপ থেকে গ্রুপ রানার আপ হয়ে সেমিফাইনালে উঠেছিল বাংলাদেশ। আর ‘এ’ গ্রুপ থেকে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে শেষ চারে ওঠে ফিলিস্তিন। ফাইনালে ওঠা দুইটি দলই ছিল ‘এ’ গ্রুপে। তাজিকিস্তান ‘এ’ গ্রুপ থেকে গ্রুপ রানার আপ হয়ে সেমিফাইনালে উঠেছিল। এবার প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল কক্সবাজারে আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছে। তাই স্থানীয়দের মধ্যে ম্যাচটি নিয়ে আগ্রহ ছিল বেশি। ম্যাচটি উপভোগ করতে হাজার হাজর দর্শক স্টেডিয়ামে আসেন। দশ হাজার দর্শক ধারণ ক্ষমতার স্টেডিয়ামের গ্যালারির পুরো অংশই দর্শকে পরিপূর্ণ ছিল।

ঘরের মাঠে সাফে সেমিফাইনালে খেলা হয়নি স্বাগতিকদের। সেই হতাশা কাটানোর সুযোগ এসেছে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে। কিন্তু শক্তিশালী ফিলিস্তিনের বিপক্ষে পেরে উঠেনি জামাল-সুফিল-জীবনরা। দুই দলের মধ্যে ব্যবধান অনেক। ফিফা র‌্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের চেয়ে ৯৩ ধাপ এগিয়ে ফিলিস্তিন। ফিলিস্তিনির অবস্থান ১০০, আর বাংলাদেশ ১৯৩তম স্থানে। কাগজ-কলমের পার্থক্যটা মাঠের খেলাতেও সেটি পরিলক্ষিত হয়েছে।

সিলেটের মতো কক্সবাজারেও দেখা গেছে ফুটবল উম্মাদনা। বাংলাদেশ ও ফিলিস্তিনের মধ্যেকার সেমিফাইনাল শুরুর ঘন্টা খানেক আগেই দর্শকে পরিপূর্ণ হয়ে যায় কক্সবাজার বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন স্টেডিয়ামের গ্যালারি। মাত্র ১৪ হাজার দর্শক ধারণ ক্ষমতার এই স্টেডিয়ামের গ্যালারিতে আগে ভাগেই ঢুকে সুবিধামতো জায়গায় বসে পড়েন দর্শকরা। গ্যালারি যখন দর্শকে পরিপূর্ণ, তখনো বাইরে অপেক্ষমান হাজার হাজার মানুষ। তবে শেষমেস হতাশ হয়ে ফিরতে হয় তাদের।

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: