প্রচ্ছদ / রংপুর / বিস্তারিত

গলায় ফাঁস দিয়ে ইউপি সদস্যে’র স্ত্রীর মৃত্যু

১৯ অক্টোবর ২০১৮, ৬:৫৪:২৯

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে বিয়ের ০৭ মাস পার হতে না হতেই গলায় ফাঁস দিয়ে মৃত্যুবরণ করেছে ইউপি সদস্য’র স্ত্রী। গৃহবধুর অভিভাবকদের দাবী পারিবারিক কলহ, স্বামী-স্ত্রীর ঝগড়ার কারণেই এ পথ বেছে নিয়েছে গৃহবধু। তবে নিজের স্ত্রীর মানসিক সমস্যা ছিল দাবী ওই ইউপি সদস্যের।

বুধবার (১৭ অক্টোবর) বিকাল ৫টার সময় উপজেলার সর্বমঙ্গলা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মৃত গৃহবধুর নাম সুমি আকতার (২০)। সে উপজেলার বড়বাড়ী ইউনিয়নের ০৬ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলামের স্ত্রী ও সমিরউদ্দিন স্মৃতি বিদ্যালয়ের এইচএসসি পরীক্ষার্থী।

ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলাম জানায়, বিকালে সামান্য কথা নিয়ে কথা-কাটি হলে ঘরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। আমরা টের পেয়ে তাকে দ্রুত উদ্ধার করে বালিয়াডাঙ্গী হাসপাতালে নিয়ে আসি। হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার মোর্শেদ মাসুম বিল্লাহ মাসুম বলেন, হাসপাতালের পৌছানোর পূর্বেই সুমি মারা গেছে।

মেয়ের বাবা উপজেলার আমজানখোর ইউনিয়নের মারাধার গ্রামের হারেস আলী জানায়, গতকাল সুমি মোবাইল ফোনে আমাকে বিকালে জামাইয়ের বাড়ীতে আসতে বলেছিল। তারপর আজ বুধবার বিকালে ঝগড়া করেছে শুনেছি। কিন্তু হাসপাতালে এখন মেয়ের মরদেহ।

মেয়ের বাবা আরও জানায়, বিয়ের পর থেকেই স্বামী-স্ত্রীর মাঝে অমিল থাকায় প্রায় সময়ই ঝগড়ার অভিযোগ করতো আমার মেয়ে।

বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসি এবিএম সাজেদুল ইসলাম বলেন, ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন মৃত্যুর খবর হাসপাতাল থেকে থানায় জানিয়েছে। পুলিশ ফোর্স পাঠানো হয়েছে তথ্য সংগ্রহের জন্য।

কারেন্ট নিউজ বিডি'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না। 

পাঠকের মতামত: